image

যখন করুণানিধানের সঙ্গে গাঁজা-আফিম-চরসের গুলি ফুঁকতুম

করুণানিধান মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে মলয় রায়চৌধুরীর বন্ধুত্ব হয়েছিল ষাটের দশকে। করুণানিধান মুখোপাধ্যায় ছিল হাংরি আন্দোলনের হেনরি মিলার, লেখালিখি বজায় রাখলে ‘ট্রপিক অফ ক্যানসার’-এর আদলে নিজের জীবন নিয়ে একখানা উপন্যাস লিখে ফেলতে পারতো । হাংরি আন্দোলনের পেইনটার করুণানিধানকে নিয়ে লেখা মলয় রায়চৌধুরীর গদ্য, পড়ুন ই-প্রকাশে।

image

য়ুভাল নোয়া হারারি’র সাক্ষাৎকার

মার্ক জুকারবার্গ, বারাক ওবামা, বিল গেটস সহ সকলের প্রশংসায় ইউভাল নোয়া হারারির দুটো বই ঘুরে ফিরে আসে নানা আলোচনায়। প্রথম বই ‘সেপিয়েন্স’ এ দেখিয়েছেন মানব জাতি আজকের এ অবস্থায় কিভাবে এল? দ্বিতীয় বই ‘হোমো দিউস’ এ দেখিয়েছেন প্রযুক্তি ও বায়োটেকনোলজি আমাদের ভবিষ্যতকে কোনদিকে নিয়ে যাচ্ছে? আসুন পড়ি ইউভাল নোয়া হারারি'র ইন্টারভিউ।

image

গারো পুরাণ: পৃথিবী ও মানুষ সৃষ্টি

তাতারা-রাবুগা প্রথম মানব-মানবী সৃষ্টি করেছিলেন যাদের নাম ছিলো ‘সানি-মুনি’। প্রথম মানবী মুনির গর্ভে জন্ম নিয়েছিলো ‘গেংচেং’ ও ‘দুজং’। পরবর্তীতে দুজং মানবীর গর্ভেই ‘নো-রো’ এবং ‘মান্দি’ নামক আরো দুজন মানব-মানবীর জন্ম হয়েছিলো। এই মান্দিই হলো প্রথম গারো মানবী। ‘গেংচেং’ ও ‘দুজং’ মানব-মানবীকে গারো জাতিরা তাদের পূর্বপূরুষ বলে মনে করেন।

image

গডেস অব অ্যামনেশিয়া (৮)

সূর্যহীন দিন গড়াতে লাগল। এমন দিনের কোন এক অজানা সময়ে আমাদের পরস্পর পরিচয় হল। আমরা নদী ভুলে গেলাম। পোস্টাফিস, বৃষ্টি, শহর পিছনে ফেলে একজন আরেকজনের দিকে মুখ করে বসলাম। আর তার অতি আগ্রহী দুই চোখ বরাবর জমাতে লাগলাম আমার জীবনের গল্প।

image

দাদুর চিঠি নাতনিকে

পুরোনো চিঠি কেবল অতীত স্মৃতিই নয়, বরং ওইসময়ের নানা দিক তুলে আনে। ওইসময়ের মানুষ, তাঁর হেটে যাওয়া রাস্তা, যাপিত জীবন, সবই। তাই এক-একটা পুরাতন চিঠি মানে, ওই সময়ের অসংখ্য ইমেজ। পুরাতন মানুষেরা যেনো হাঁটছে আমাদের সামনে।ওইরকমই একটি চিঠি আজ পড়ুন ই-প্রকাশে। হাংরি আন্দোলনের অন্যতম দিকপাল কবি মলয় রায়চৌধুরীর বাবা রঞ্জিত রায়চৌধুরী ভদ্রকালী থেকে ১১ জুলাই ১৯৯০ তারিখে এই চিঠিটি মলয়ের মেয়ে অনুশ্রীকে মুম্বাইতে লিখেছিলেন।

image

ফ্রেম

দোকানের ফোনটা অনবরত বেজে চলেছে। মকবুলের কাজে মন নেই। আজ কত্তা ছবিটার জন্য দু’বার তাড়া দিয়ে গেছেন । এখনও ছবিটা ধরেনি মকবুল। ছবিটা কিছুতেই ছাড়েতে ইচ্ছে করছে না ওর। পরশু ডেলিভারি দিয়ে দিলে আর কখনও দেখতে পাবে না ওর রুকসানাকে। ওর ঘরে তো রুকসানার কোনও ছবি নেই। তবুও ছবিটার কাজেই হাত দেয় মকবুল।

image

জিদ্দু কৃষ্ণমুর্তি’র ইন্টারভিউ

জিদ্দু কৃষ্ণমূর্তি দার্শনিক এবং আধ্যাত্মিক বিষয়ের উপর একজন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন লেখক ও বক্তা ছিলেন। তিনি কার্যকর ও উন্নত সমাজ প্রতিষ্ঠায় ‘সামাজিক বিপ্লব’ এর চেয়ে ‘মানসিক বিপ্লব’ এর উপর বেশি গুরুত্ব আরোপ করেছিলেন। পশ্চাত্যে তাঁর দার্শনিক দৃষ্টিভঙ্গি বেশ প্রভাব বিস্তার করতে সক্ষম হয়।

image

প্রেম না প্যারিস?

শিল্পীর লাইফের এই এক জটিলতম দিক। আপনে আসলে কয়টা জিনিসরে ভালা পাইতে পারবেন? অথবা, আপনার কোন ভালবাসা কেমনে থাকে আপনার লগে? আপনে যেমন প্রেমিক। তেমন শিল্পীও। প্রেম কি আপনারে শিল্পীর মতন বোহেমিয়া হইবার দিতে পারে? সব প্রেম কি ভিত্তর থাকি দেখবার চউখ জাগাইতে পারে?

image

সুতরাং থেকে বেগম রোকেয়া

সুভাষ দত্তকে নিয়ে প্রায় সময়ই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘুরতে যেতাম। অনেক স্মৃতি রয়েছে দাদুর সঙ্গে। কার্জন হলের পুকুর পাড়টির যে বিষয়টি আজও সুখকর মনে হয় তা হল একদিন দুপুুরে পুকুর পাড়ে কোন এক প্রসঙ্গে সুভাষ দাদু আমাকে একটু হালকা ধাক্কা দিয়ে শাসনের সুরে বলেছিলেন- ‘কোন নায়িকা আমাকে এত নাচাতে পারেনি, আর আমি নাকি দাদুকে নাচাচ্ছি।

image

শিরিন, কিংবা তার কাছে পৌঁছাতে চাওয়া তৃতীয় এক অশ্বারোহীর স্বীকারোক্তি

আমার প্রথম দুটি বই সুখী ধনুর্বিদ এবং বিব্রত ময়ূরে তার অল্পবিস্তর আভাস পাওয়া যাওয়ার কথা। দুইটা বইয়ের কবিতাতেই সরাসরি শিরিন আছে।তৃতীয় অশ্বারোহী সম্পূর্ণ প্রেমের কবিতার বই। কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রেম এসেছে সরাসরি, কখনো কখনো আড়াল রেখে।