image

অদ্ভূত অনুরণনের কবিতা

ফরহাদ হাসান চৌধুরীর ‘আহত মেঘের ধনি’ কবিতাগ্রন্থটি একটি প্রস্তাবনা হিসেবে প্রতিভাত হবে পাঠকের সামনে। তার প্রস্তাবনায় থাকছে মানুষ ও কবিতা। মানুষের অন্দর এবং বাহির। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধেরও প্রায় সত্তর বছর পরের মানুষ। বিশ্বায়ন, প্রযুক্তিকরণ, বাণিজ্যিকীকরণ এর মধ্যে থাকা ব্যক্তি মানুষের প্রস্তাব। সেই মানুষদের মধ্যে কবি নিজে কীভাবে বেঁচে আছেন সে বিষয়ে আঁচ পাওয়া যাবে।

image

দাড়ি রেখেছি বলে মৌলবাদী হয়ে গেছি: আল মাহমুদ

১৯৯০-এর দশক থেকে আল মাহমুদের কবিতায় ধর্মীয় ভাব প্রবেশ করতে থাকে। সে সময় আল মাহমুদের সাহিত্যচর্চা ও সংশ্লিষ্টতা মিলিয়ে প্রগতিশীল লেখকরা মনে করতে থাকেন আল মাহমুদ ‘প্রতিক্রিয়াশীল’ চক্রে প্রবেশ করেছেন। এই বিভেদ আল মাহমুদের সমসাময়িক অনেক বড় লেখক ও কবিদের থেকে তাঁকে দূরে ঠেলে দেয়।

image

ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণের প্রিয় গজল

একটা গজল শ্রীরামকৃষ্ণের খুব প্রিয় ছিল। গযলটা লিখেছেন জাফর আলী। এই উর্দু কবি সম্পর্কে অনেক খুঁজে কিছু পাওয়া গেল না। মান্না দে’র গাওয়া নিচে দেয়া ভিডিও পাওয়া গেল। কথামৃতে একাধিকবার এর প্রসংগ এসেছে ঠাকুরের মুখে।ত্রৈলোক্য ছোট খাটটির উত্তর ধারে মেঝেতে বসিয়াছিলেন। ত্রৈলোক্য গান গাইবেন। ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ বলিতেছেন, “আহা! তোমার কি গান!”

image

পাঁচকড়ি লেন

ভূতের গলিতে মে মাসের কোন বৃষ্টিবিঘ্নিত দিনে সেদিন ছেলেরা সুপারি গাছের খোলসহ পাতা দিয়ে ছেঁচডে ছেঁচড়ে খেলছিল, আরতির মাসি আরতির মাথা থেকে উঁকুন এনে টুস করে দুনখের মাঝে মারছিল, হরি দা টিফিনবাক্স করে কাকাবাবুর জন্য দুপুরের খাবার নিয়ে যাচ্ছিল - ঠিক সে সময়ে দক্ষিণ দিক থেকে দমকা হাওয়া এসে আমাদের নাড়িয়ে দিয়েছিলো।

image

পোয়েট, রাইজিং (শেষ কিস্তি)

ময়নারে কলেজ থাইকা বড়ভাইয়ের বাসায় লইয়া গেল বড়ভাইয়ের বউ। তারারে একরুমে রাইখা দরজা লাগাইয়া দিয়া আপা আর বড়ভাই কি একটা কামে চইলা গেল বাইরে। ময়নার প্রেমিক তখন ময়নারে বুকে নিল। ময়নার খুব শখ আছিল বুকে মাথা পাইতা রাখবার। বুকে মাথা পাইতা রাখলে তাইর বেহেশত বেহেশত মনে হয়।

image

সারাহ বর্টমানের সাত অজানা

যে কারণে সারাহ বর্টমান এত জনপ্রিয় পাবলিক ফিগারে পরিণত হয়েছিলেন তা হল তার শারীরিক আকার। তাঁর ছিল বিশাল বাটোক এবং যোনী ঠোঁট যা প্রায় তিন থেকে চার ইঞ্চি পরিমান ঝুলে থাকতো। এইজন্যেই তাকে গ্রীক মিথের ফার্টাইলিটির দেবী ভেনাসের নামে ডাকা হত ‘Hottentot Venus’।

image

গডেস অব অ্যামনেশিয়া (৯)

মরে যাওয়ার কিছুদিন আগে। বুড়ির ভীমরতি দেখা দিল। সিন্দুক থেকে সব গয়না বের করে পরে প্রতিদিন বিকালে বসে থাকত এই তাল পুকুরের পাড়ে। পানের রসে লাল ঠোঁট। চোখে ঘন করে কাজল টানা। খোঁপায় রূপোর কাঁটা। ফুলেল রঙিন শাড়ি। মায়াবী রঙ। হাতের লাঠিটা এক পাশে পড়ে আছে। যেন কোনদিন তার আর প্রয়োজন পড়বে না।

image

পোয়েট, রাইজিং (৪র্থ কিস্তি)

এখানে আমরা ডাবল বেডে থাকি। এক ঘরে কখনো ছয়জন কখনো দুইজন কখনো চাইরজন কইরা থাকা পড়ে। বেশ কয়েকবার বাসা পাল্টাই। আমি পয়লা কয়দিন বই পড়বার ট্রাই করি। সাইড ব্যাগে কইরা যে কয়টা বই আনছিলাম সেইগুলা উল্টাই পাল্টাই দেখি। লগের লোকেরা আমার বই পড়া দেইখা হাসে।

image

বর্তমানে এসে শক্তির দেবতা এখন কয়লার মাঝখানে

পুরান কল্পের বাঘ চরিত্রটি আমাদের উপমহাদেশীয় হিমালয় পর্বতের প্রাণী । আর্যদের দেবতা বা জগদ্ধাত্রীর বাহন ছিল বাঘ। শক্তির দেবতা হিসেবে ওরা পরিচিত। কিন্তু বর্তমানে এসে এই শক্তির দেবতা এখন কয়লার মাঝখানে।

image

দৈত্যদলের গান: পরীর শহরে তারা যাজক পুরুষ

এক্সপেরিমেন্টাল ব্যান্ড ‘দৈত্যদলের গান’ কেবল গানের দলই নয়, কবি-সাহিত্যিক-চিন্তকদলের একটি ক্রিয়েটিভ প্লাটফর্ম। ইতোমধ্যেই আমরা পেয়েছি শবযাত্রা, তামাশার বট, লুট, বুনো মাতলামি, কালা কালা জানোয়ারের মত দারুণ সব গান।