আব্বাস কিয়ারোস্তামির কবিতা

img

অাব্বাস কিয়ারোস্তামির সিনেমার মতোই তার কবিতা। কবিতা বলতে হাইকুও বলা যায়। জাপানি কবি বাশো, ইশাদের হাইকু যেমন, অল্প কয়টা লাইনের ভিতরই যাবতীয় বক্তব্য। কোনো একটা দৃশ্য হয়তো, অথবা কোন ফুল বা পাতার ঝরে পড়াটুকু দেখে কিছু মনে হওয়া যেন, তবে ঠিক মুহুর্তের প্রতিক্রিয়া না, যেন বিন্দুর মধ্যে সিন্ধু। কবিতা যেমনটা হয়, মিতব্যয়ীতা অাছে এতে। স্পেস অাছে প্রচুর পাঠকদের জন্য, পাঠক তার মতো করে পাঠ করার। মনে হতে পারে তার সিনেমারই কোন একটা দৃশ্যই, তিনি শব্দে টুকে রেখেছেন। বোধহয়, কী বলতে চাচ্ছি, অারো ভালো বোঝা যাবে তার শব্দের শরণাপন্ন হলে। পাঠক, অাসুন জাবের হাসানের অনুবাদ মারফতে অাব্বাস কিয়ারোস্তামির কাছে যাই। তার কবিতা দেখি।

১। 

মৌমাছি
অচেনা ফুলের গন্ধ পায়া
আকুল হয়া গেল

২।

সমুদ্রের তীরে
রাইতে
জাইল্লার জালে
ছোট্ট মাছটা নইরা চইরা উঠল

৩।

ফাগুনের বৃষ্টিতে
ভাঙা কোকাকোলার বোতল
ভইরা গেল

৪।

দাদি এবং নাতির মধ্যে খেলাধূলায়
দাদি
সবসময় হারে

৫।

একটা সাদা গরুর বাছুর
কুয়াশা থাইকা বাইর হয়া
আবার কুয়াশায়
হারায়া গেল।

৬।

পাতা পরতেসে
পাতা পরতেসে
পাতা পরতেসে
দিন শেষ হইসে
পাতা পরতেসে
রাত

৭।

ফাগুন হাওয়ায়
একটা বইয়ের পাতা উল্টায়া গেল
একটা বাচ্চা
মাথার তলে হাত দিয়া ধুমায়া ঘুম

৮।

কুচকুচা কালো মেঘ
চাঁদনি রাইতে
চাঁদরে স্বাগত জানাইয়া সামনে আগাইয়া গেল

৯।

চান্দের চউক্ষে প্রশ্নঃ
যে তারে আজ দেখতেসে
তারা কি একই লোক
যারা তারে দেখসিল হাজার বছর আগে?

১০।

তীর্থস্থানে গিয়া
আমি অনেক অনেক ভাবনা চিন্তাই করসি
যখন বাইর হয়া আসলাম
আমার মাথায় কিচ্ছুই থাকল না

১১।

আমি আসছি      একা
পান করতেসি      একা
হাসতেসি         একা
কানতেসি      একা
চইলা জাইতেসি  একা

১২।

অনেক পথচারীর মধ্যে
একজন দাঁড়াইল
আমার দোকানের সামনে

১৩।

একটা কবরখানা 
বরফ দিয়া ঢাকা
কেবল তিনটা কবরের উপরে
বরফ গলতেসে...
তিনটাই এখনো শিশু... 

১৪। 

হাজার বকুল ফুলের ভিত্রে
মৌমাছি
বেকুব হয়ে গেসে

১৫।

ফ্যানের ব্লেডে
হাজার বাচ্চা পাখির স্বপ্ন
খুন হয়ে গেসে

১৬।

মজুর মৌমাছি
কাজ ছাইড়া দিয়া
রানি মৌমাছির আশেপাশে ঘুরঘুর করতেসে
খাজুইরা আলাপ করার জন্য

১৭।

একটার পর একটা
ঝড়ো বসন্ত বাতাসে
জারুল পাতা
পরতেসে

১৮।

রাত
  লম্বা
দিন
  লম্বা
জীবন
  একটুখানি...

১৯। 

বোহেমিয়ান কুত্তা
শ্রাবণের বৃষ্টিতে
গা ধুইতেসে

২০।

ভুমিকম্প 
সব ধ্বংস করে দিসে
এমনকি পিঁপড়ার খাদ্য গুদাম ও

২১।

কিছু ইশকুলের বাচ্চা
নির্জন রেল লাইনে কান লাগায়া
দূরের ট্রেনের কু ঝিকঝিক শুন্তেসে

২২।

ঘড়ি
অন্ধের কবজিতে
থাইমা গেসে

২৩। 

স্কুল বাচ্চাদের কাছে
এক অন্ধ মানুষ
সময় জিজ্ঞাসা করতেসে

২৪।

আমি যত বেশি চিন্তা করতেসি
তত কম বুঝতেসি
বাচ্চার গালে মায়ের আদর এর জন্য দায়ী

২৫।

আমি যত বেশি চিন্তা করতেসি
তত কম বুঝতেসি
সত্য ক্যান তিতা হইতে হবে

২৬।

আমি যত বেশি চিন্তা করতেসি
তত কম বুঝতেসি
মঙ্গলগ্রহ এতো দূরে ক্যান?

২৭।

যত বেশি চিন্তা করতেসি
তত কম বুঝতেসি
শাড়ির হলুদ পাড় এর জন্য দায়ী

২৮।

আমি যত বেশি চিন্তা করতেসি
তত কম বুঝতেসি
মরনের ভয় এর জন্য দায়ী

(সবগুলা কবিতাই আব্বাস কিয়ারোস্তামির ‘ওয়াকিং উইথ দি উইন্ড’ বই থেকে অনুবাদ করা। বইটা ফার্সি থেকে ইংরেজিতে অনুবাদ করেছিলেন আহমেদ কারিমি হাক্কাক এবং মাইকেল বিয়ার্ড।) 


Jaber Hassan

জাবের হাসান

Jaber Hassan