ইমোশনের উপর প্রভাব ফেলে পেইনকিলার?

img

ওভার দি কাউন্টার পেইনকিলার যেমন- অ্যাসিটামিনোফেন, আইবুপ্রোফেন, এসপিরিন, ডাইক্লোফেনাক ইত্যাদি ব্যথা দূর করতে সহায়তা করে, কিন্তু এগুলো কি চিন্তা বা আবেগের উপর প্রভাব ফেলতে পারে?

এই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেছে “Policy Insights from the Behavioral and Brain Sciences” নামক জার্নালে সাম্প্রতিক প্রকাশিত এক রিভিউ আর্টিকেলে। এই আর্টিকেলের মূল বিন্দু ছিল কিভাবে নন-প্রেসক্রিপশন পেইনকিলার সাময়িকভাবে আবেগ যেমন- সহানুভূতি, এমনকি যৌক্তিক চিন্তা করার ক্ষমতার উপর প্রভাব ফেলতে পারে। ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার এক গবেষক দলের প্রধান কাইল র্যা টনার জানালেন, বেশীরভাগ ক্ষেত্রে রিভিউর ফাইন্ডিংস ভীতিকর বলা যায়। তারা জানালেন, যখন কোন রোগী পেইনকিলার সেবন করেন ঔষধটি তাদের ব্যথা উপশম করলেও তারা মনের উপর ওই ঔষধটির ইফেক্ট প্রত্যাশা করেন নি। ব্রেইনে শারীরিক এবং মানসিক সেন্স ওভারল্যাপ করতে পারে বলে বললেন নিউ ইয়র্ক সিটির লিনোক্স হিল হসপিটালের ডাক্তার অ্যালেন ম্যানভিটয, যদিও ব্যাপারটা পুরোপুরি অনুমানের ভিত্তিতেই বলা। 

শারিরীক কোন ব্যাথা শুধুমাত্র ব্যাথার জায়গাতেই অনুভূত হয়; কিন্তু ব্যাথার মূল উৎস কিন্তু ব্রেইনই। একই ঘটনা ঘটে যখন কেউ অতিরিক্ত আবেগাপ্লুত হয়ে পড়ে যেমন- ছ্যাঁকা খেলে বা মন ভেঙ্গে গেলে, তারা বলে “মনে অনেক ব্যথা”, আসলে আবেগ ব্রেইনেই অনুভূত হয়।

গবেষকদল মূলতঃ আইবুপ্রোফেন, এসিটামিনোফেন নিয়ে গবেষণা করেন। গবেষণানুসারে প্রায় নিয়মিত যেসকল রোগী পেইনকিলার খান, ব্যথা কমার সাথে সাথে তাদের আবেগ ও সংবেদনশীলতায়ও প্রভাব পড়তে দেখা যায়। যেমন, এক গবেষণায় একজন মহিলা যিনি আইবুপ্রোফেন সেবন করছিলেন তার ভাষ্যমতে দুঃখের অনুভূতি যেমন চাকরিচ্যুত হওয়া বা প্রতারিত হওয়া তাকে কম ত্বরান্বীত করতে পেরেছে। কিন্তু পুরষদের ক্ষেত্রে ভিন্ন ঘটনা ঘটতে দেখা গেছে; পেইনকিলার সেবনের পর তাদের কষ্টকর স্মৃতির প্রতি সংবেদনশীলতা আরো বাড়তে দেখা গেছে।

র‍্যাটনারসের গবেষক দলের মতে, পেইনকিলার সম্ভবত একজন মানুষের অন্যের কষ্টের প্রতি সহমর্মিতাও কমিয়ে দিতে পারে। যেমন- এক গবেষণায় দেখা যায় যেসকল ব্যক্তি এসিটামিনোফেন সেবন করেছেন তারা অন্যদের তুলনায় অপরের দুঃখ, সমস্যা, শারিরীক বা মানসিক ব্যথায় কম বিচলিত হতে দেখা গেছে।

আরেকটি আজব বিষয় হল, পেইনকিলার সেবনকারী ব্যক্তি যখন কোন সম্পত্তি বিক্রি করতে যান তখন তার দাম অনেক কম হাকেন অন্য সময়ের তুলনায়। গবেষণায় এও জানা গেছে যে, পেইনকিলার সেবনকারী ব্যাক্তির ভুল করার প্রবনতা অন্যান্যদের তুলনায় কম!

নিঃসন্দেহে ওভার-দি-কাউন্টার পেইনকিলার ব্যথা নিরাময়ে অপয়েডের তুলনায় বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সেই সাথে গবেষক দল এও প্রশ্ন করছেন, ভবিষ্যতে কি পেইনকিলার রোগীর মানসিক ট্রিটমেন্ট ও দুঃখের স্মৃতি ভুলিয়ে দেয়ার চিকিৎসায় ব্যবহার করা যায় কি না!


Jahanara Akhter Josna

জাহানারা আক্তার জোছনা

Pharmacist

বাংলাদেশ ফার্মেসী কাউন্সিল কর্তৃক রেজিস্টার্ড ফার্মাসিস্ট (Reg no. A9539)। বর্তমানে ইপ্রকাশ থেরাপিউটিকসের সাব-এডিটর হিসেবে কর্মরত আছেন। ঔষধ বিষয়ে নিয়মিত কলাম লিখেন। এছাড়াও, তিনি ড্রাগ ইন্টারেকশন, ঔষধ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, ঔষধের মাত্রা ও সেবনের নিয়ম সংক্রান্ত বিষয়ে কনসালটেন্সি করেন।